Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

১। আশুগঞ্জ পলাশ এগ্রো ইরিগেশন প্রকল্প (৫ম পর্যায়): আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ১১৬০ কিউসেক কুলিং ওয়াটার আশুগঞ্জ, সরাইল, সদর ও নবীনগর উপজেলার ২৩ টি ইউনিয়নে ১৬০০০ হেক্টরে সেচ প্রদানের জন্য ১৯৯২ সনে প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়। প্রকল্পটি পরিবেশ ও কৃষি বান্ধব বিষয় ৫ম পর্যায়ে ৫ বছর মেয়াদী জুলাই/২০১৫ থেকে জুন/২০২০ পর্যন্ত ২২/১২/২০১৫ খ্রি. তারিখে মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী কর্তৃক অনুমোদিত হয়। প্রকল্প হতে কৃষকগণ ২০০-৪০০ টাকা একর প্রতি সেচ চার্জ প্রদান করে সেচ সুবিধা গ্রহণ করছেন। 

২। পূর্বাঞ্চলিত সমন্বিত সেচ এলাকা উন্নয়ন প্রকল্প : জেলার ০৯ টি উপজেলায় প্রকল্পের কার্যক্রম বিদ্যমান। প্রকল্পের মাধ্যমে গভীর নলকূপ স্থাপন, খাল খনন, বারিড পাইপ সেচনালা, সেচযন্ত্র বিদ্যুতায়ন, মাঝারী ও বড় হাইড্রোলিক ষ্ট্রাকচার নির্মাণ, কৃষক প্রশিক্ষণ ইত্যাদির সংস্থান আছে। প্রকল্পটি জুন- ২০১৭ সনে শেষ হবে।

৩। সেচ কাজে অচালু/ অকেজো গভীর নলকূপ সচলকরণ প্রকল্প (এআইডিপি): প্রকল্পের মাধ্যমে পুরাতন অচালু/ অকেজো গভীর নলকূপ  পূর্নবাসন করে বিদ্যুতায়ন, সাবমারসিবল পাম্প স্থাপন ও প্রতিটি স্কীমে ৬০০ মিটার বারিড পাইপ সেচনালা নির্মাণ করা হচ্ছে। এ যাবৎ ২৮ টি গভীর নলকূপ সচল করা হয়েছে। প্রকল্পটি জুন- ২০১৬ সনে শেষ হবে।

৪। ডাবল লিফটিং এর মাধ্যমে ভূ-পরিস্থ পানির সাহায্যে সেচ সম্প্রসারণ প্রকল্প (৩য় পর্যায়) :প্রকল্পটি মূলত ভূ-পরিস্থ পানির উপর ভিত্তি করে সারা দেশব্যাপী সেচ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। প্রকল্পটি ৫ বছর মেয়াদী জুলাই/২০১৫ থেকে জুন/ ২০২০ পর্যন্ত চলতি অর্থ বছরে একনেক কর্তৃক অনুমোদিত হয়। প্রকল্পের অধীন ৫- কিউসেক শক্তিচালিত পাম্প (বিদ্যুত/ ডিজেল) ১০- কিউসেক/ ১২.৫০- কিউসেক/ ২৫- কিউসেক ভাসমান পাম্প ক্ষেত্রায়ন করা হয়।

৫। সমাপ্ত প্রকল্প/ কর্মসূচি সমূহ ( 2009 হতে 2015 পর্যন্ত)

    (ক) জরীপ ও পরীবিক্ষণ প্রকল্প। সেচ এলাকা, সেচযন্ত্রের সংখ্যা, ভূ-গর্ভস্থ পানিতল এর তথ্য নিয়মিতভাবে সম্পন্ন করা হয়। চতুর্থ

          মেয়াদে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

    (খ) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ক্ষুদ্রসেচ উন্নয়ন কর্মসূচি। ২০১১-১২ সনে সমাপ্ত হয়।

    (গ) বিজয়নগর উপজেলা ক্ষুদ্রসেচ উন্নয়ন কর্মসূচি। ২০১৩-১৪ সনে সমাপ্ত হয়।

    (ঘ) বাঞ্ছরামপুর উপজেলা ক্ষুদ্রসেচ উন্নয়ন কর্মসুচি। ২০১২-১৩ সনে সমাপ্ত হয়।

    (ঙ) বিজয়নগর, নাছিরনগর ও কসবা উপজেলা ক্ষুদ্রসেচ উন্নয়ন কর্মসূচি। ২০১২-১৩ সনে সমাপ্ত হয়।

    (চ) নবীনগর (পূর্ব) ও নবীনগর (পশ্চিম) ক্ষূদ্রসেচ উন্নয়ন কর্মসূচি। ২০১৪-১৫ সনে সমাপ্ত হয়।

5। অনুমোদিত কর্মসূচি:

     (ক) বিজয়নগর-ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ক্ষুদ্রসেচ উন্নয়ন কর্মসূচি: কর্মসূচিটি ০৩ বছর মেয়াদী (জুলাই/২০১৫ হতে জুন/২০১৮) ৬৪৩.৭৫ লক্ষ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে চলতি (২০১৫-১৬) অর্থ বছরে অনুমোদিত হয়। কর্মসূচির অধীনে প্রধান প্রধান কার্যক্রম হলো : (ক) খাল খনন/ পুন:খনন- ২৬.০০ কি. মি. (খ)২- কিউসেক এলএলপি/ গনকূ স্কীমে ভূ-গর্ভস্থ সেচনালা- ২৭ টি (প্রতিটি ৬০০ মিটার) (গ) ০.৫০- কিউসেক অগভীর নলকূপ স্কীমে ভূ-গর্ভস্থ সেচনালা- ১২ টি (প্রতিটি ৪০০ মিটার) (ঘ) ওয়াটার পাস/ কনডুইট নির্মাণ- ১০ টি।